নৌবাহিনী বানৌজা মংলা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

স্নাতক সমমান পাশে , ন্যায্য টাকা বেতনে নৌবাহিনী বানৌজা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২, সাম্প্রতিক নৌবাহিনী কর্তৃক প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ সংক্ষেপে অর্থ হল বানৌজা বলা হয়ে থাকে। এটি একটি নৌবাহিনীর একটি শাখা। বানৌজার নামকরন করা হয় বানৌজা বঙ্গবন্ধু। এই নামের উৎপত্তি হল বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমানের নাম অনসারে।

কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের দেইয়ু শিপবিল্ডিং অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং ১৯৯৮ সালের ১১ মার্চ জাহাজটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় এবং ২৯ আগস্ট, ২০০০ সালে কাজটি সম্পন্ন হয়। ২০০১ সালে ২০ জুন বানৌজা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। পরে জাহাজটি মেরামতের জন্য ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০০২ সালে বাতিল করা হয়। ২০০৭ সালে এটিকে বানৌজা খালিদ বিন ওয়ালিদ হিসবে পুনরায় কমিশনিং করা হয়। ২০০৯ সালে এটিকে আবারও বানৌজা বঙ্গবন্ধু নামকরণ করা হয়।

প্রতিষ্ঠানের নামঃ বানৌজা বঙ্গবন্ধু মংলা

পদের সংখ্যাঃ ০৪ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ ডিপ্লোমা পাশ
অভিজ্ঞতাঃ প্রয়োজন নাই 
বয়স সীমাঃ প্রয়োজন নাই
আবেদনের মাধ্যমঃ ডাকযোগের মাধ্যমে 
নতুন চাকরির লিঙ্কেঃ JCP

আবেদনের শেষ সময়ঃ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

বানৌজা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

 বানৌজা শহীদ মোয়াজ্জেম নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ নৌবাহিনীর রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার কাপ্তাই প্রশিক্ষণ ঘাটি বানৌজা শহীদ মোয়াজ্জমের জন্য সম্পূর্ণ অস্থায়ী ভিত্তিতে ।  নিম্নে লিখিত
পদের জন্য জুনিয়র প্রশিক্ষক এবং ল্যাব এ্যাটেনডেন্স নিয়োগ করা হবে;

নৌবাহিনীতে আবেদনের শেষ তারিখ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

আবেদনের নিয়ম:- 

আগ্রহীদের অধিনায়ক, বানৌজা শহীদ মোয়াজ্জম বরাবর আবেদনপত্র এবং নিম্নলিখিত কাগজপত্রাদিসহ আগামী ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখ সকাল ১০ ঘটিকায় নিম্ন ঠিকানায় সশরীরে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হলো :

  1. আবেদনপত্র এবং জীবন বৃত্তান্ত।
  2. ০২ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।
  3. শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র (মূলকপি এবং এক কপি ফটোকপি)।
  4. চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট
  5. জাতীয় পরিচয়পত্র (মূলকপি এবং এক কপি ফটোকপি)

আবেদনের শর্থ:- উক্ত দিবসে উপস্থিত প্রা্থীগণের মধ্য হতে প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের লিখিত, মৌখিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। পরবর্তীতে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীকে বিধি মোতাবেক নিয়োগ প্রদান করা হবে। সকল পদের জন্য বয়সসীমা শিথিলযোগ্য।

অম্পূর্ন ও ত্রুটিপূর্ণ আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে। এছাড়া মিথ্যা ও ভুল তথয প্রদান করে কেউ নিয়োগ প্রাপ্ত হলে এবং পরবর্তীতে তা চিহিত হলে তার নিয়োগ বাতিল হিসেবে গণ্য হবে।

“অধিনায়ক, বানৌজা শহীদ মোয়াজ্জম, কাণ্তাই, রাঙ্গামাটি পার্বতা জেলা” এর অনুকূলে (সঞ্চয়ী হিসাব নং ৩৪০০১৬৩৫, সোনালী ব্যাংক, বড়ইছড়ি শাখা, কাপ্তাই, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা) ২০০/- (দুইশত) টাকা মূল্যের ব্যাংক ড্রাফট/পে অর্ডার প্রদান করতে হবে। ব্যাংক ড্রাফটে/পে অর্ডারের মূলকপি আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করতে হবে। প্রার্থী নিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ নৌবাহিনী প্রবর্তিত সকল প্রকার পদ্ধতি ও অন্যান্য নীতিমালা অনুসরণ করা হবে। নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে প্রতারকচক্রের সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ অথবা আর্থিক লেনদেন থেকে বিরত থাকার জন্য সকলকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।

 

বানৌজা অস্ত্রব্যবস্থাঃ

এই যুদ্ধজাহাজটি তার শ্রেণীর সর্বাধুনিক ফ্রিগ্রেট। এটি অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র দ্বারা সজ্জিত। এই জাহজের অটোম্যাট এমকে ২ ব্লক ৪ একটি অত্যাধুনিক জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র যা ১৮০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বে আঘাত হানতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো উৎক্ষেপণের পর মাঝপথে গতিপথ পরিবর্তন করতে পারে ফলে আক্রমণেরর জন্য যুদ্ধ জাহাজকে অবস্থান পরিবর্তন করতে হয় না। বিমানবিধ্বংসী অস্ত্র হিসেবে এতে রয়েছে ৮টি এফএম-৯০ ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র, যা ১৫ কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম। এছাড়াও জাহাজটি নৌ-কামান ও টর্পেডো বহন করে। বানৌজা বঙ্গবন্ধুতে ১টি হ্যাঙ্গার আছে যা অগাস্টা-ওয়েস্টল্যান্ড এডব্লিউ১০৯ পাওয়ার হেলিকপ্টার বহন করে থাকে। এই হেলিকপ্টারটি সি-৭০১ জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ও টর্পেডো বহনে সক্ষম।

বানৌজা আবু উবাইদাহঃ

১৯৯৯ সালের ডিসেম্বর মাসে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি নেভি’র পূর্ব সাগর নৌবহরে ‘জিয়া জিং’ নামে যুক্ত হয়। ২০১৯ সালে ‘লিয়ানইয়ুঙ্গাং’ নামে আরেকটি ফ্রিগেট সহ এই ফ্রিগেটটিকে বিমুক্ত করে এবং সংস্কার করতে জিয়াঙ্গান পোতাশ্রয়ে পাঠায়। জুন ২০১৮-তে বাংলাদেশ নৌবাহিনী চীন হতে দুইটি ফ্রিগেট ক্রয়ের চুক্তি করে। চুক্তি অনুযায়ী ‘জিয়া জিং’ ও ‘লিয়ানইয়ুঙ্গাং’ ফ্রিগেট সংস্কার করে ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়। বাংলাদেশ নৌবাহিনী সংস্কারকৃত ‘জিয়া জিং’ ও ‘লিয়ানইয়ুঙ্গাং’-এর নাম পরিবর্তন করে বানৌজা আবু উবাইদাহ ও বানৈজা ওমর ফারুক রাখে। ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে সমরযান দুইটি বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে[২] চীনের জানজিয়াং বন্দর ও মালয়েশিয়ার ক্লাং বন্দর হয়ে প্রায় ৮ হাজার কিলোমিটার সমদ্রপথ পাড়ি দিয়ে ৯ জানুয়ারি,২০২০ তারিখে নৌবাহিনীর মংলা পোতাশ্রয়ে নোঙ্গর করে। ৫ নভেম্বর, ২০২০-এ জাহাজটি নৌবহরে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্ত করা হয়।

নৌবাহিনী বানৌজা মংলা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, নৌবাহিনী বানৌজা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, বানৌজা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, বানৌজা মংলা চাকরি, বানৌজা মংলা জব সার্কুলার, বানৌজা মংলা জবস, বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজে চাকরি, বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ জব সার্কুলার,

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top